Home > ফিচার > উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্ত বিএনপির

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্ত বিএনপির

দুর্গাপূজা

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি।

আজ মঙ্গলবার দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সোমবার রাতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সভায় আগামী ৮ মে থেকে শুরু হতে যাওয়া চার ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। আলোচনা শেষে জাতীয় স্থায়ী কমিটির সভায় কয়েকটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বলে জানানো হয় ওই বিবৃতিতে।

বিবৃতিতে দাবি করা হয়, দেশে স্বৈরাচারের অভ্যুদয় হয়েছে। ক্ষমতাসীনরা দেড় দশক ধরে অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও সবার অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন বাংলাদেশ থেকে উচ্ছেদ করেছে। তাদের আমলে কখনোই জাতীয় ও স্থানীয় সরকার কোনো নির্বাচনই অবাধ ও সুষ্ঠু হয়নি। শাসকগোষ্ঠী প্রতিটি নির্বাচনের আগে জনগণকে প্রতারিত করার জন্য নতুন নতুন রণকৌশল গ্রহণ করে।

এতে বলা হয়, আওয়ামী লীগের অধীনে সব জাতীয় সংসদ ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী বিরোধী দলের প্রার্থীদের নানাভাবে হামলা, মামলা ও হয়রানির শিকার হতে হয়েছে। মনোনয়নপত্র তোলা ও জমা দেয়া এবং নির্বাচনী প্রচারণায় হামলা ও শারীরিক আক্রমণসহ পথে পথে বাধা দেয়া হয়। অনেককেই মনোনয়নপত্র জমা দিতেও দেয়া হয়নি।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, অগণতান্ত্রিক শক্তি কখনো অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচনের মিত্র হতে পারে না। শাসকগোষ্ঠী গত ৭ জানুয়ারির নির্বাচনের সব আয়োজন সম্পন্ন করার পরও তারা আশঙ্কামুক্ত হতে পারেনি। তাই নির্বাচনী পর্যবেক্ষকদেরও নির্বাচন পর্যবেক্ষণের সুযোগ না দেয়া, ইন্টারনেটের গতি স্লথ করে দেয়ার মতো পদক্ষেপ গ্রহণ করে। এর আগেও জাতীয় ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বিরোধী দলের পোলিং এজেন্টদের নানাভাবে বাধা দেয়া হয়। কিছু এজেন্টদের ভোটকেন্দ্রে ঢুকতে দেয়া হলেও পরক্ষণেই তাদেরকে বের করে দেয়া হয়।

আরও পড়ুনঃ সয়াবিন তেলের দাম কমছে না সয়াবিন তেল

Leave a Reply