Home > স্বাস্থ্য > ভিটামিন-ডি এর অভাবে এই লক্ষণগুলি দেখা যায়

ভিটামিন-ডি এর অভাবে এই লক্ষণগুলি দেখা যায়

সুস্থ থাকার জন্য শরীরে সব ধরনের পুষ্টির প্রয়োজন। ভিটামিন-ডি এই প্রয়োজনীয় পুষ্টির অন্তর্ভুক্ত। যা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এই ভিটামিন শরীরে ক্যালসিয়াম ও ফসফেটের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। এছাড়াও, এটি হাড়, দাঁত এবং পেশীগুলির স্বাস্থ্যের উন্নতি করে। কিন্তু শরীরে এই পুষ্টির অভাবের কারণে আপনি অনেক কঠিন রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। এমন পরিস্থিতিতে আমাদের শরীরে কখন এর ঘাটতি হয় এবং কীভাবে এই ভিটামিন মেটানো যায় তা জানা দরকার।

ভিটামিন-ডি-এর অভাবের কারণে এই লক্ষণগুলি দেখা যায়।

ভিটামিন-ডি- এর অভাবে শরীরে করটিসলের মাত্রা বেড়ে যায়। যার কারণে মানসিক চাপে পড়েন। এই ভিটামিনের ঘাটতির কারণে আপনিও বেশি ক্লান্ত বোধ করেন। এছাড়াও, আপনি ঘুমের অভাব বা অন্যান্য সমস্যার কারণেও সমস্যায় পড়তে পারেন।

শরীরে ভিটামিন-ডি-এর অভাবে হাড়ের ব্যথা, মাংসপেশির দুর্বলতা, ফ্র্যাকচার ইত্যাদি দেখা দেয়। এই ভিটামিনের ঘাটতিও আঘাতের ঝুঁকি বাড়ায়।

ভিটামিন-ডি-এর অভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল। যার কারণে আপনি অনেক রোগের সংস্পর্শে আসতে পারেন। বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে যাদের ভিটামিন ডি-এর অভাব রয়েছে তাদের সর্দি, হাঁপানি এবং ফ্লুতে বেশি আক্রান্ত হয়।

বিষণ্ণতার সূত্রপাত অনেক কারণে হতে পারে, তবে ভিটামিন ডি এর ঘাটতি প্রধান। বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যে ভিটামিন ডি-এর অভাবে বিষণ্নতার লক্ষণ দেখা দিতে পারে।

ভিটামিন-ডি চুলের বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এই ভিটামিনের অভাবে চুল পড়ে, যা চুলকে শুষ্ক ও প্রাণহীন করে তোলে। এই ভিটামিন চুলের বৃদ্ধি বাড়ায়।

ভিটামিন-ডি-র অভাব দূর করতে এই জিনিসগুলো খান

কমলা ভিটামিন-সি, ক্যালসিয়াম, আয়োডিন, ফসফরাস এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় পুষ্টিতে ভরপুর। যা শরীরকে অনেক সমস্যা থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করার পাশাপাশি এটি হাড়ের বিকাশেও সহায়ক।

আনারস
আনারসে অনেক প্রয়োজনীয় ভিটামিন পাওয়া যায়। এটি ক্যালসিয়াম, ফাইবার, পটাসিয়াম এবং অন্যান্য অনেক প্রয়োজনীয় উপাদান সমৃদ্ধ। এটি শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দূর করে। হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য আনারস খেতে পারেন।

পেঁপে
পেঁপে এমন একটি ফল, যা প্রতিটি ঋতুতেই সহজলভ্য। এতে ফাইবার, প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন-সি, ফোলেটের মতো পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায়, যা হাড়কে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

স্যামন মাছ
স্যামন মাছ ভিটামিন-ডি-এর চমৎকার উৎস। এতে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা 3 ফ্যাটি অ্যাসিড পাওয়া যায়। শরীরে ভিটামিন-ডি সরবরাহ করতে অবশ্যই খাদ্যতালিকায় এই মাছ রাখুন।

আরও পড়ুনঃ মিক্সড ফ্রুট জুসের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া জেনে নিন

Leave a Reply