Home > জীবনযাপন > পুরানো শাড়ি ফেলবেন না, এই বিশেষ উপায়ে পুনরায় ব্যবহার করুন

পুরানো শাড়ি ফেলবেন না, এই বিশেষ উপায়ে পুনরায় ব্যবহার করুন

আমাদের সকলেরই প্রচুর শাড়ি আছে, তা বিয়ে হোক বা উপহার দেওয়া হোক বা সাধারণত মায়ের বা দাদির শাড়ি। শাড়ি কম পরা হয় এবং বিশেষ অনুষ্ঠানের জন্য বেশি সংরক্ষণ করা হয়। যার কারণে সময়ের সাথে সাথে সিল্কের শাড়ি নষ্ট হয়ে যায়।

এমন অনেক শাড়ি আছে যা আপনি খুব পছন্দ করেন বা আপনার হৃদয়ের কাছাকাছি, কিন্তু সময়ের সাথে সাথে তাদের যত্ন নেওয়া কঠিন হয়ে পড়ে। এমতাবস্থায় আমরা হয় সেগুলো রাখি বা কাউকে দিয়ে দেই। আপনার কাছেও যদি এমন একটি সুন্দর কিন্তু ক্ষতিগ্রস্থ শাড়ি থাকে, যা একসময় আপনার প্রিয় ছিল, তাহলে তা ফেলে দেবেন না, বরং অন্য কিছু তৈরি করতে ব্যবহার করুন।

আজ আমরা আপনাকে কিছু বিশেষ পদ্ধতি বলছি যা ব্যবহার করে আপনি সৃজনশীল উপায়ে পুরানো শাড়ি ব্যবহার করতে পারেন।

পুরনো শাড়ি দিয়ে কী করবেন? আসুন কিছু সৃজনশীল টিপস দেখে নেওয়া যাক:

পুরানো শাড়ি নতুন করা
আপনার যদি ছেঁড়া পল্লু বা সামান্য ছেঁড়া প্রান্ত সহ একটি বিশেষ শাড়ি থাকে তবে তা ফেলে দেওয়ার পরিবর্তে এটিকে পুনরায় সাজানো যেতে পারে। সীমান্তে প্রায়ই পুরানো পাট্টু এবং সিল্কের শাড়ির সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়। তাই বাড়িতে বা দর্জির সাহায্যে পাট্টু পাড় কেটে নতুন কুন্দন কাজ, সিকুইন বা জরি প্যাচ ওয়ার্ক পাড় দিয়ে সেলাই করুন। পল্লুতে কিছু লটকান যোগ করুন। পুরানো শাড়ি পুনরায় ব্যবহার করা একটি রকেট বিজ্ঞান নয়।

পুরনো শাড়ি থেকে সালোয়ার স্যুট তৈরি করুন
পুরনো শাড়ি থেকে সুন্দর সালোয়ার-স্যুট তৈরি করতে পারেন। শাড়ির কিছু অংশ নষ্ট হয়ে গেলেও কুর্তা ও দুপাট্টা তৈরি করবে। হেমলাইন, নেকলাইন এবং হাতার জন্য আপনি কনট্রাস্ট প্যাচওয়ার্ক বর্ডার ব্যবহার করতে পারেন। নীচে আলাদাভাবে সেলাই করা যেতে পারে।

একটি স্কার্ফ তৈরি করুন
এমনকি আপনার শাড়িগুলো একেবারেই ভালো অবস্থায় না থাকলেও সেগুলো ফেলে দেওয়ার দরকার নেই। কেন সেগুলো কেটে সুন্দর দোপাট্টা বা স্কার্ফ তৈরি করবেন না। বেনারসি দোপাট্টা ও কাঁথা সেলাইয়ের মতোই দোপাট্টাও এখন ফ্যাশনে। সুন্দর এবং আকর্ষণীয় সালোয়ার স্যুট বা কুর্তির সাথে এইগুলি ব্যবহার করে দেখুন এবং একটি অত্যাশ্চর্য ম্যাচ তৈরি করুন।

নকশা পোটলি ব্যাগ
আপনি পুরানো সিল্কের শাড়ি থেকে সৃজনশীল উপায়ে পটলি ব্যাগ তৈরি করতে পারেন। আপনি চাইলে এর ব্যবসাও করতে পারেন। শাড়িকে পোটলি ব্যাগে রূপান্তর করা খুব একটা কঠিন কাজ নয়। আপনাকে যা করতে হবে তা হল সঠিকভাবে সেলাই করা এবং তারপরে এটি সাজানোর জন্য আপনাকে কয়েকটি জিনিসের প্রয়োজন।

পর্দার জন্য পুরানো শাড়ি ব্যবহার করুন
একটি শাড়ি ছয় মিটার দীর্ঘ, আপনি সুন্দর পর্দা তৈরি করতে শাড়ির দৈর্ঘ্য ব্যবহার করতে পারেন। আপনি যদি পুরো ঘরের জন্য পর্দা বানাতে চান তবে আপনি বিভিন্ন শাড়ির সাথে মিক্স এবং ম্যাচ করতে পারেন। স্বচ্ছ পর্দার জন্য নেট শাড়ি ব্যবহার করা যেতে পারে।

লিভিং রুমের জন্য সেলাই করা কুশন কভার
ভারতীয় শাড়ির সুন্দর প্যাটার্ন, প্রিন্ট এবং রং এগুলোকে কুশনের জন্য নিখুঁত করে তোলে। পুরনো শাড়ি থেকে সেলাই করা কুশন কভার। কুশনগুলোকে ট্রেন্ডি লুক দিতে সেগুলোতে ট্যাসেল, লেইস এবং পম্পম ব্যবহার করা যেতে পারে। উৎসবের সময় আপনার ঘর সাজাতে পুরনো শাড়ি থেকে সোফা সিট কভারও তৈরি করতে পারেন।